অঞ্জন দাস


অ ঞ্জ ন  দা স


আগুনের ধাতুরূপ  

ঝাউ বাগানের গায়ে গেঁথে যায় ভীষ্ম শলাকা  
শাশ্বতিক  শাসনে সমবেত হাওয়া ভাঙে মাথা
চিদাভাস নির্বাসন তোমার বেনির ফুলে গাঁথি  
বজরা ফোকরে দেখি ঘেঁটেছ ফিরিস্তি কথা  

নিপাতন নিদ্রায় নির্দেশিত নিধুবন ঘোরে  
বটিকা বচসা  ডোবে পলাশ নদীতে ছায়া রং  
মনিপুরী মণ্ডনে মতিহারি রুদ্র বালিকা 
ঝাউ বাগানের গায়ে রোদলেখে প্রিয়াছাড়া জং

মেঘ পুরুষের ধ্বনি ঝমাঝম কাঁপছে  ধরণী
অরণিকাষ্ঠ ভাঙে মহুলের মুকুলিত পালা
তারায় মরে যায় চোখের বিপাশা চাঁদে রাহু
বাহুভেঙে পড়ে বাজ বিপন্ন শাঁখ মুখে তালা


সিলেকশন রাউন্ড

নাগরিক স্নান এসো আমার গরম ঘর
এসেছিলে পর পর  বিখ্যাত কবিতা
জাম রং অন্ধকার  আততায়ী স্বর 
স্লিপ খাও আলপথ রমণ গ্রহীতা

টর্চ জ্বালো টাচ স্ক্রিন দুরন্ত  প্রহর
ফিরে দেখো নীল খাম বেতবন শাড়ি
আনাড়ি সিলিং ফ্যান শব্দ শহর
সহস্রাব্দ খেরো জ্বর  অটোকাট দাঁড়ি

বসানো যায় কি রাত খাত কোনো খাতে
দুরন্ত  কবিতা সব নাগরিক গ্রাউণ্ড
তাকানো যায়না ঘুম চিরস্থায়ী দাঁতে 
হেনস্থা নগরী ফাঁপা সিলেকশন রাউন্ড


জলবাড়ি 

উইপোকা রাত কাটে বল নেই রিফিলের মুখে  
পৃথিবী সংজ্ঞাহীন ইন্টার  হ্যামারেজ  বুকে     
অফুরাণ বিস্ফোরণ মমির ভেতরে আমি তুমি
সেলফোন চলবে  বিচারক  হাঁপানো  আসামি   

চুপজাগে ফলোয়ার মধ্য ঘরের কাটে ভীত
সিঁদুরে পাখির কানে বেদমন্ত্র প্রদীপ  রক্ষিত  
স্টোরেজ লোডিং হল জানালায় অফুরন্ত শাড়ি  
জলছাদে  ছাদ নেই পৃথিবীর  ছাদে জল বাড়ি


লালন ফিরবে বাড়ি

জানালায় মুখশুদ্ধি ভেঙে পড়ে গাছের বাতাস 
সন্ধ্যা খুলে  জলগান  ঈশ্বরী  গায়
পলায়ন  কবিতার  হেও থাক কাঁচের চুড়িতে 
ভাঙা চুড়ি  প্রতিবার কবিতা শোনায়

মৃত কবিতার চারা ভেঙে দিও শ্মশানের গায়ে
লালন ফিরবে বাড়ি  ভাঙা পথ রেখো
বাঁশিতে নেমেছে রাধে  নদী ও নেমেছে পায়ে
দেহের ভেতরে দেহ ব্রাহ্মীরস মেখো

অন্য দিকের মন

হাসলে তুমি চুপ কথাদের স্তর সরে যায়
ডাল গাছেদের পাতার টুপি ফুল পরেনা          
চলতে বুলতে  কোন সুরভী চোখ টেনেছে
জেগে ওঠার ভুল কি তেমন ঠিক ছিলনা

গুমোট বঁধু  সব কেটোনা চোখ ফিরালে  
ভর করো ভুল দেবীর মুদা কেউ ধরে না  
কেউ জাগেনা মগ্ন চোরার চুরির সময় 
ডাল গাছেদের পাতার টুপি ফুল পরোনা   

মাথার ভিতর ঢুকছে দেহ রোলার মেশিন
শ্মশান আদৌ কবরে তুই হাসতে পারিস
গন্ধ বাগান ছবির খেয়াল বাদ দিওনা   
হাসলে তুমি চুপ  কথাদের স্তর সরে যায়...

---------

Comments

Trending Posts

‘পথের পাঁচালী’ এবং সত্যজিৎ রায় : একটি আলোচনা/কোয়েলিয়া বিশ্বাস

সনাতন দাস (চিত্রশিল্পী, তমলুক) /ভাস্করব্রত পতি

প্রাচীন বাংলার জনপদ /প্রসূন কাঞ্জিলাল

সর্বকালের প্রবাদপ্রতিম কবিসত্তা শক্তি চট্টোপাধ্যায় /প্রসূন কাঞ্জিলাল

শঙ্কুর ‘মিরাকিউরল’ বড়িই কি তবে করোনার ওষুধ!/মৌসুমী ঘোষ

বাংলা ব্যাকরণ ও বিতর্কপর্ব ১৮/অসীম ভুঁইয়া

মহাভারতের স্বল্পখ্যাত চার চরিত্র /প্রসূন কাঞ্জিলাল

ছোটোবেলা বিশেষ সংখ্যা -১০৯