মানসী মিশ্র হালদার


মা ন সী  মি শ্র  হা ল দা র


নীরবে 

বিকেলের মেঘলা আকাশে 
ভীড় করে আসে 
মন খারাপের কথা ।
নদীর ঢেউয়ে পাড় ভাঙা মানুষের আর্তনাদ 
আর নীরবতা ।
চারিদিকে এত আলো 
কত না আলাপন 
তবু ভীষণ স্তব্ধতা, 
গভীর গভীর গভীরতর যন্ত্রণা 
বুকে ধরে পথ চলে 
নীরবে পৃথিবী মাতা।

     
চেতনা 

জীবিত ইতিহাস মৃত মানুষের আনাচে কানাচে 
হাতড়ে বেড়ায় অস্তিত্বের কঙ্কাল ।
বেহুঁশ মানুষ গল্প কথা বলে 
ভেসে চলে মাতাল কলেবরে ।
যে শিক্ষার বীজ পুঁতে দিলে 
তা আর মানল কজন? 
কজন -ই বা করল স্বীকার? 
তাই মেঘাচ্ছন্ন কালো আকাশ 
তার আর্তনাদে বৃষ্টি ঝরায়
চেতনার সঞ্চারে -
আগামীর শুভ বার্তাবহ হয়ে ।
       

জয়ী 

ছোট থেকে শহীদের স্বপ্ন বুকে 
আঁকড়ে ধরেছিল সে ।
আর কোনদিকে চোখ না,
না কোন ভাবনা, 
যেদিন ভারতীয় সেনায় যোগ দিল 
চিৎকার করে বলেছিল 
জিতে গেছি আমি ।
আজ সেই জয়ের মালা গলায় নিয়ে 
চলে গেল সে, 
আমি শুনছি তার আত্মার চিৎকার -
জিতে গেছি আমি! 

       
স্বরলিপি 

দু মুঠো চালের জন্য এখনো লাইনে ভীড়
কখনো বা চলে মারামারি ।
শুনেছিলাম সেই কবেকার কথা 
সে যে আজ ও বহমান বুঝলাম তা ।
এত চিৎকার এত আর্তনাদ 
এত লড়াই সবই শুধু রহস্যের আড়ালে 
চির বহমান জীবনের স্বরলিপি! 
অস্তিত্ব

চল্ কোথাও ঘুরে আসি 
অস্তিত্বের আড়ালে জীবাত্মার সন্ধানে, 
দুটো হাত শক্ত করে ধরিস 
আমি হারাতে চাইনা তোকে, 
জন্মজন্মান্তরের শেষ ঠিকানাতেও 
তোকে ভালোবাসি অন্তরের দগ্ধতা দিয়ে 
শরীরের শিরা উপশিরায় তোর অনুভূতি,
চল্ চলে যাই 
আগামী পৃথিবীর সন্ধানে।

------

Comments

Popular posts from this blog

মেদিনীপুরের বিজ্ঞানীদের কথা

মেদিনীপুরের চোখের মণি বিজ্ঞানী মণিলাল ভৌমিক /পূর্ণচন্দ্র ভূঞ্যা

মেদিনীপুরের রসায়ন বিজ্ঞানী ড. নন্দগোপাল সাহু : সাধারণ থেকে অসাধারণে উত্তরণের রোমহর্ষক কাহিনী /পূর্ণচন্দ্র ভূঞ্যা

মেদিনীপুরের পদার্থবিজ্ঞানী সূর্যেন্দুবিকাশ কর মহাপাত্র এবং তাঁর 'মাসস্পেকট্রোগ্রাফ' যন্ত্র /পূর্ণচন্দ্র ভূঞ্যা

ঋত্বিক ত্রিপাঠী / আত্মহত্যার সপক্ষে

রাষ্ট্রীয় মূল্যায়ন ও স্বীকৃতি পরিষদ (NAAC) এর মূল্যায়ন ও স্বীকৃতি: উদ্দেশ্য ও প্রস্তুতি - কলেজ ভিত্তিক অভিজ্ঞতা /সজল কুমার মাইতি

আসুন স্বীকার করি: আমরাই খুনী, আমরাই ধর্ষক /ঋত্বিক ত্রিপাঠী

শ্রেণি বৈষম্যহীন সমাজই আদর্শ সমাজ 'কালের যাত্রা' নাটকের শেষ কথা/সন্দীপ কাঞ্জিলাল

অংশুমান কর

প্রাচীন বাংলার জনপদ /প্রসূন কাঞ্জিলাল