৩১ মার্চ ২০২১

Today is the 31 March, 2021
আজকের দিন
বাংলায় ---১৭ চৈত্র বুধবার ১৪২৭

বিংশ শতাব্দীর লাতিন আমেরিকান সাহিত্যের অন্যতম পুরোধাপুরুষ ওক্তাবিও পাজ লোজানো ১৯১৪ সালে আজকের দিনে জন্মেছিলেন। ইনি ছিলেন একজন মেক্সিকান কবি, লেখক, ও কূটনীতিবিদ। তাঁর অসামান্য কাজের জন্য ১৯৯০ সালে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কারে সম্মানিত হন।

পাশ্চাত্যের প্রথম আধুনিক দার্শনিক হিসেবে স্বীকৃত র‍্যনে দেকার্ত (René Descartes) ১৫৯৬ সালে আজকের দিনে জন্মেছিলেন। একজন ফরাসি দার্শনিক, গণিতজ্ঞ এবং বিজ্ঞানী ছিলেন। তিনি জ্যামিতি ও বীজগণিতের মধ্যকার সম্পর্ক নিরূপণ করেন, যার দ্বারা বীজগণিতের সাহায্যে জ্যামিতিক সমস্যা সমাধান সম্ভব হয়।

 ইংরেজি সাহিত্যের অতি গুরুত্বপূর্ণ একজন কবি জন ডান ১৬৩১ সালে আজকের দিনে প্রয়াত হয়েছিলেন। তাঁকে ইংরেজি সাহিত্যে আধিবিদ্যামূলক কবিতা তথা ‘Metaphysical Poem’ এর জনক বলা হয়। তিনি নিজের তৈরী ছন্দে, অসীম সুন্দর কল্পনায়, প্রেম ও অনুভূতির সুগভীর আবেশে প্রকাশের জন্য অমর থাকবেন চিরকাল।

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ এবং সবচেয়ে প্রভাবশালী বিজ্ঞানী স্যার আইজ্যাক নিউটন ( Sir Isaac Newton৷) ১৭২৭ সালে আজকের দিনে প্রয়াত হয়েছিলেন। তিনি ছিলেন একাধারে প্রখ্যাত ইংরেজ পদার্থবিজ্ঞানী, গণিতবিদ, জ্যোতির্বিজ্ঞানী, প্রাকৃতিক দার্শনিক এবং আলকেমিস্ট। গাছ থেকে একটি আপেলকে পড়তে দেখে তিনি প্রথম সর্বজনীন মহাকর্ষ বলের সূত্র নিয়ে গবেষণায় উদ্বুদ্ধ হয়েছিলেন বলে একটি বিখ্যাত গল্প প্রচলিত রয়েছে। কার্টুনের মাধ্যমে দেখানো হয় যে, আপেলটি আসলে নিউটনের মাথায় আঘাত করেছিল এবং এ কারণেই মহাকর্ষের বুদ্ধিটি তাঁর মাথায় খেলে যায়।
জার্মান চিকিৎসক ও ব্যাকটেরিয়া বিজ্ঞানী এমিল আডলফ ফন বেরিং ( Emil Adolph von Behring) ১৯১৭ সালে আজকের দিনে প্রয়াত হয়েছিলেন। ১৯০১ সালে বেরিংকে সংক্রামক রোগ (বিশেষ করে ডিপথেরিয়া) প্রতিরোধে রক্তরস-ভিত্তিক চিকিৎসার (সিরাম থেরাপি) উপরে মৌলিক অবদান রাখার জন্য চিকিৎসাবিজ্ঞানের সর্বপ্রথম নোবেল পুরস্কারে সম্মানিত করা হয়। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় তাঁর উদ্ভাবিত ধনুষ্টংকার টিকা অসংখ্যা জার্মান সৈন্যের প্রাণ বাঁচায় বলে তাঁকে জার্মানির "লৌহ ক্রুশ" উপাধি প্রদান করা হয়।

ছোটদের বাংলা গানের যশস্বী কণ্ঠ শিল্পী সনৎ সিংহ ২০১৩ সালে আজকের দিনে প্রয়াত হয়েছিলেন। সঙ্গীত শিক্ষা শুরু হয় চিন্ময় লাহিড়ীর কাছে। তাঁর কাছেই উচ্চাঙ্গ সঙ্গীতে তালিম নেন। ধনঞ্জয় ভট্টাচার্যও তাঁর ‘সঙ্গীত-গুরু’ ছিলেন। তাঁর গাওয়া বাবুরাম সাপুড়ে, সরস্বতী বিদ্যেবতী, রথের মেলা, ঠিক দুক্কুরবেলা ভূতে মারে ঢিল, এক এক্কে এক -এর মতো গানে শ্রোতাদের মনে আজও উজ্জ্বল।

মনীষী উবাচ :
প্রভুত্ব জিনিসটা একটা ভার, মানুষের সহজ সম্বন্ধের মধ্যে একটা বাধা। এইজন্য প্রভুত্বই যত- কিছু বড়ো বড়ো লড়াইয়ের মূল।(রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর)
------------------------------
সংকলক - রুম্পা প্রতিহার 
-------------------------------
পেজ-এ লাইক দিন👇

Comments

Trending Posts

‘পথের পাঁচালী’ এবং সত্যজিৎ রায় : একটি আলোচনা/কোয়েলিয়া বিশ্বাস

সনাতন দাস (চিত্রশিল্পী, তমলুক) /ভাস্করব্রত পতি

ছোটোবেলা বিশেষ সংখ্যা ১১০

সর্বকালের প্রবাদপ্রতিম কবিসত্তা শক্তি চট্টোপাধ্যায় /প্রসূন কাঞ্জিলাল

শঙ্কুর ‘মিরাকিউরল’ বড়িই কি তবে করোনার ওষুধ!/মৌসুমী ঘোষ

প্রাচীন বাংলার জনপদ /প্রসূন কাঞ্জিলাল

বাংলা ব্যাকরণ ও বিতর্কপর্ব ১৮/অসীম ভুঁইয়া

রাষ্ট্রীয় মূল্যায়ন ও স্বীকৃতি পরিষদ (NAAC) এর মূল্যায়ন ও স্বীকৃতি: উদ্দেশ্য ও প্রস্তুতি - কলেজ ভিত্তিক অভিজ্ঞতা /সজল কুমার মাইতি