গুচ্ছ কবিতা/দিলীপ মহান্তী

গুচ্ছ কবিতা
দিলীপ মহান্তী

মরীচিকার গান

ঘোরানো লোহার সিঁড়ি দরজায় এসে থামে
পুকুর দেখছে মুখ রজনীর আলাপনে
পিয়নেরা বয়ে আনে কুমারী রংয়ের হাওয়া
যেন সাত সমুদ্র সেঁচে মুক্তা প্রবাল পাওয়া

হাওয়ার ভেতরে রাত ফুটে ওঠে কত ভোর
বইয়ে দিয়েছে নদী ভেসে যাওয়ার ঘোর
বাতাসের গানে পাখি রাত জাগে ভাঙা মনে
বিছানা জ‍্যোৎস্না মেখে আকাশের তারা গোনে

তমসার রূপটানে মালঞ্চ জুড়ে মায়া
রাস্তায় মুখের ভিড়ে ফুটে ওঠে আলোছায়া
রাজকন্যা মগ্ন ঘুমে প্রাচীন অট্টালিকা
বসন্তের জাগরণে কোকিলের ভালো থাকা

নীল শালুকের ঝিলে কত তারা ডুবে যায়
লোহার সিঁড়ির বুকে ধুলোর গন্ধ বয়
দু'চোখের কালো মেঘে ভাসছে রাতের ফুল
বজ্র বিদ্যুতে কাঁপে ভগ্ন পুকুর কূল

পলাশের লাল ভাষা জ্বলে আছে প্রান্তরে
অন্ধকার জাগে বইয়ের উদাস ঘরে
বাইরে বৃষ্টি নামে জুড়ায় দগ্ধ প্রাণ
ঘোরানো লোহার সিঁড়ি: মরীচিকার গান!



সময়

শব্দগুলো  জ্বলে ওঠে ক্রোধে
আগুনে রাঙা কথার অহংকার
মূর্খ, বাচালে গোটা দেশ তোলপাড়

দিনগুলি শুধু গড়ায় অন্ধকারে
ফাল্গুন জুড়ে কৃষ্ণের বাঁশি বাজে
রাধার মুখে পদাবলীর সুর

বাঁশি চুরি গেছে তপ্ত রোদের দিনে
ঘুমিয়ে পড়েছে ব‍্যাকুল কিশোরী ভোর
বেহিসেবী হাওয়া ডেকে আনে কত ঝড়

ছুটে আসে কত ব্লেডের মতো হাত
সন্ধানী চোখ দীর্ঘ চঞ্চু মেপে
ঠোকরাতে চায় মধুভরা কত চাক‌।



আগুন

আমাদের পথ নির্জনে থামে
জড়িয়ে পথের ভাষা
মানুষ প্রান্তরে বিছিয়ে দিয়েছে বুক
আগুন অপেক্ষা করা

আগুন জ্বলে ওঠে কখনো কোনো চোখে
কখনো নেভে দপ করে
কখনো হাওয়ায় ভাসছে মৃতদেহ
জলের ওপর শুয়ে

কখনো কঙ্কাল রাত্রির ময়দানে
কখনো ছায়া দেয় ঘরে
পৃথিবী নির্জন নদীর স্রোত ধরে
প্রলয় দিন নিয়ে ফেরে।



ঝড়

আমাদের গান ঘরে ফেরার আগে
পথে পথে কেঁদে মরে
ধুলোর বন‍্যা এবং বেপরোয়া ভাষা
হাওয়ায় ব্লেড বেঁধে ঘোরে

রাত্রির সুরে আকাশ কেঁপেছে
জঙ্গলে জনসভা
এগিয়ে গেছে যারা দামাল রোদ্দুর
বদলে দেবে তারা বাঁচা

পৃথিবীর মাটি বিষাক্ত হয়েছে
পোকামাকড়ের দেশে
আসুক ঝড়জল ভাসুক জনপদ
সবুজ বাঁচবে সুখে।



মৃত্যু

আমি শুধু অপেক্ষায় ধুলোর আড়ালে
বছরের সব ঋতু আকাঙ্ক্ষায় থেকে
বিপর্যস্ত মন নিয়ে আঁধারে এলাম

চারদিকে অন্ধকার, বিষাক্ত পৃথিবী!
জীবাণুরা রং মেখে আকাশে আকাশে
ছড়িয়ে দিচ্ছে শুধু মৃত্যুর শরীর!

সমস্ত দুপুরগুলি ফুটে ওঠে পলাশের ডালে
নীরব থাকেনা ভাষা আগুনের জ্বলে ওঠা কালে
হাওয়ারা দগ্ধ হয়ে ছুটে যায় নদীর কিনারে

সকল ইশারার প্রতিশ্রুতি ধ্রুবতারা নয়
সমস্ত বিকেলগুলি রাত্রিকে জড়ায়
শ্মশানও জেগে আছে কথাদের ভোরে

অনেক বাঁচার কথা মিথ্যের অক্ষরে
চোখের তারায় কাঁপে টলটলে দিঘি
সমস্ত স্টেশন জুড়ে বিদায়ের বাঁশি...

আরও পড়ুন 

Comments

  1. সুস্বাদু ভাব-বিচরণ।

    ReplyDelete
  2. Commendable expressions....bises kore samay kobitar ses tinte line...

    ReplyDelete
  3. পড়লাম! ভালো লাগলো!

    ReplyDelete

Post a Comment

Trending Posts

ছোটোবেলা বিশেষ সংখ্যা -১০৯

‘পথের পাঁচালী’ এবং সত্যজিৎ রায় : একটি আলোচনা/কোয়েলিয়া বিশ্বাস

প্রাচীন বাংলার জনপদ /প্রসূন কাঞ্জিলাল

সনাতন দাস (চিত্রশিল্পী, তমলুক) /ভাস্করব্রত পতি

পুঁড়া পরব /ভাস্করব্রত পতি

পতনমনের ছবি /শতাব্দী দাশ

সর্বকালের প্রবাদপ্রতিম কবিসত্তা শক্তি চট্টোপাধ্যায় /প্রসূন কাঞ্জিলাল

বাংলা ব্যাকরণ ও বিতর্কপর্ব ১৮/অসীম ভুঁইয়া