দস্তানা ও সিংহ/ভাষান্তর :বিশ্বরূপ বন্দ্যোপাধ্যায়

অনুবাদ কবিতা

The Glove and the Lions
দস্তানা ও সিংহ
মূল রচনা :James Leigh হুন্ত

ভাষান্তর : বিশ্বরূপ বন্দ্যোপাধ্যায়


ফ্রান্সিস রাজ,দরাজ মেজাজ ক্রীড়া ও প্রমোদ ভক্ত,
যেখানেই যান,সাথে থাকে বহু সামন্ত অনুরক্ত,
 একদিন হলো রাজনির্দেশে  বিচিত্র আয়োজন
ওপরেতে সভা নিচেতে রইলো নিখুঁত ক্রীড়াঙ্গন ।

অভিজাত গণ আসন নিলেন স্ব স্ব প্রেমিকার সাথে,
আমোদ আনন্দে মাতলেন সবে পানীয় পাত্র হাতে,
নিচে ক্রীড়া ভূমি সেখানে অনেক হিংশ্র পশুরাজ,
ক্ষুধার্ত তারা গর্জন করে সে আওয়াজ যেন বাজ।

বালি ও মাটিতে আবৃত মাঠ সিংহরা ধাবমান ,
বালি ও মাটিতে ঢাকা পড়ে গেছে কেশর ও গুমফ খান,
সিংহ শরীর আবৃত করেছে বালু আর ধূলি কণা,
অভিজাত সব রাজ-সভাসদ দেখেন হয়ে একমনা।

সভাসদ সহ ওপরে আছেন স্বয়ং রাজাধিরাজ,
নিচেতে ঘুরছে ক্রুদ্ধ চিত্তে কয়েকটি পশুরাজ,,
তাদের শক্ত চোয়ালে রয়েছে জিঘাংসা অনুরক্তি,
তাদের থাবায় লুকানো নখরে আছে আসুরিক শক্তি।

ক্ষুধার্ত সব সিংহেরা দেখো একে অন্যকে ধরে,
কখনও আবার লাফায় উচ্চে প্রচন্ড ক্রোধ ভরে,
লোহার গরাদে ঘেরা বলে তাই নিরাপদ'সিট' গুলি,
অভিজাত গণ আমোদিত তাই সকল বিপদ ভুলি। 

রাজা ফ্রান্সিস বলেন সবকে,"ওপরে থাকাই ভালো,
নিচেতে সিংহ হাতে যদি পায় বদলিয়ে দেবে হালও",

ডে.লরগে নামে কাউন্ট ছিলেন দূরের আসনে বসে,
তাঁর পাশে তাঁর রূপসী প্রেয়সী আসীন সুপরিতোষে
লরগের বড়ো সাহস এ কথা শুনেছেন রাজা আগে প্রেমিকাকে নাকি ভালোও বাসেন সুগভীর অনুরাগে। 

রূপসী তরুণী মুখে আর ঠোঁটে ছিলো উজ্জ্বল হাসি
রহস্য মাখা দুই চোখে তাঁর ছিলো বুঝি প্রেম রাশি,
ডি. লর্গে তাঁর প্রেমে ও রূপেতে সুগভীর অনুরক্ত,
অজানা ছিলোনা সে সুন্দরীর কাউন্ট তাঁর এক ভক্ত ।

তাঁর তরে এই বীর ও সাহসী কোন সে কাজেসমর্থ?
 দেখুক সকলে তাঁর প্রণয়ের মূল্য এবং অর্থ।
রাজা ও অনেক ধনী অভিজাত এখানে উপস্থিত,
দেখুক সকলে তাঁর কি মূল্য হওয়া যেটা সমুচিত।

কোমল হাত হতে দস্তানা খুলে ফেললেন তিনি নীচে,
সিংহেরা যেথা ধাবমান সবে একে অপরের পিছে,
বিদ্যুদগতি কাউন্ট নামেন রঙ্গভূমির মাঠে,
আরো দ্রুত গতি ফিরেও এলেন দস্তানা নিয়ে হাতে।
রূপবতী নারী অতি গর্বিতা মন ভরে গেছে সুখে,
কাউন্ট কিন্তু দস্তানা তাঁর ছুঁড়ে মারলেন মূখে।

রাজা ফ্রান্সিস বলেন,"কাউন্ট সত্যিই তুমি বীর,
সাহসের কথা আগেই শুনেছি,বিপদেও তুমি স্থির,
প্রেমিকা তোমাকে খুবই ভালো বাসে শুনেছি অনেকবার।"
কাউন্ট বলেন, "ভালোবাসা নয় এ তার অহংকার।
সত্যিই যদি ভালো বাসতো সে দিতো কি এ গুরুভার ?
প্রেম নয় এটা দর্পী  নারীর  আত্ম গরিমা ভার,
প্রেমিকা কভু কি প্রেমিককে দেয় মৃত্যুর মুখে ঠেলে,
দেখাতে সবকে তারই তরে প্রেমী প্রাণ দেয় অবহেলে"?

আরও পড়ুন 
পেজে লাইক দিন👇

Comments

Trending Posts

‘পথের পাঁচালী’ এবং সত্যজিৎ রায় : একটি আলোচনা/কোয়েলিয়া বিশ্বাস

সনাতন দাস (চিত্রশিল্পী, তমলুক) /ভাস্করব্রত পতি

প্রাচীন বাংলার জনপদ /প্রসূন কাঞ্জিলাল

সর্বকালের প্রবাদপ্রতিম কবিসত্তা শক্তি চট্টোপাধ্যায় /প্রসূন কাঞ্জিলাল

শঙ্কুর ‘মিরাকিউরল’ বড়িই কি তবে করোনার ওষুধ!/মৌসুমী ঘোষ

বাংলা ব্যাকরণ ও বিতর্কপর্ব ১৮/অসীম ভুঁইয়া

মহাভারতের স্বল্পখ্যাত চার চরিত্র /প্রসূন কাঞ্জিলাল

ছোটোবেলা বিশেষ সংখ্যা -১০৯