মানচিত্রে সুন্দরবন : প্রকৃতি ও মানুষ /সন্দীপ দত্ত

মানচিত্রে সুন্দরবন : প্রকৃতি ও মানুষ

সন্দীপ দত্ত


চিরকালীন অপার বিস্ময়ে মোড়া সুন্দরবন,বৈচিত্র‍্যের আঙ্গিনায় যেখানে ভিড় করে আতঙ্ক আর কৌতূহল, তাকে নিয়ে জানার যেমন শেষ নেই,অন্তহীন সে পথের গায়ে গায়েই লেগে থাকে অর্বুদ জিজ্ঞাসা। সেই জিজ্ঞাসাই জন্ম দেয় সাহিত‍্যের আকর। বাংলায় বনজঙ্গল নিয়ে প্রবন্ধসাহিত‍্য, ভ্রমণসাহিত‍্য এমনকি কথাসাহিত‍্য কম লেখা হয়নি। বিভূতিভূষণের 'আরণ‍্যক'য়ের কথা মনে পড়ে যায়। বুদ্ধদেব গুহ'র ঋজুদাসমগ্রের কাহিনিগুলোতেও দেখেছি অ‍্যাডভেঞ্চারে মোড়া সবুজ বনানী। কিংবা তপন বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়ের 'জলে দস‍্যু ডাঙায় বাঘ'। অনবদ‍্য সেসব লেখনীর ভান্ডারে নবতম সংযোজন বলা যেতে পারে অখন্ড মেদিনীপুর জেলার এক অনন‍্য পত্রিকা ঋত্বিক ত্রিপাঠী সম্পাদিত 'জ্বলদর্চি'প্রকাশনার মাননীয় বিজয় চক্রবর্তীর 'অনুভবে সুন্দরবন'। ২০২২ সালের ২৪ জুলাই রবিরার যে গ্রন্থটি প্রকাশিত হল ঐতিহাসিক মেদিনীপুর শহরের গোপগড়ের ইকো পার্কের সভাকক্ষে সকাল দশটা বেজে পঁয়তাল্লিশ মিনিটে  জেলা তথা রাজ‍্যের বেশ কয়েকজন আমন্ত্রিত বিশিষ্ট গুণীজনদের সামনে। 

        আজকের সুন্দরবনের মানচিত্রের গায়ে বাঘের পায়ের দাগের পাশাপাশি চোরাশিকারীদের জুতোর দাগ। ওখানকার মানুষের চোখের নোনাজল বয়ে যায় খাল দিয়ে। দক্ষিণরায় আর সুন্দরবন,বনবিবি আর মানুষের বিশ্বাস তাদের দৈনন্দিন জীবনকে যেমন দুর্যোগ প্রকৃতির সাথে মানিয়ে নিতে শেখায়, আমরা যারা সুন্দরবনকে নিয়ে আগ্রহ দেখাতাম এতদিন,সেখানে কোথায় যেন এসে লেগে যায় দুশ্চিন্তার কালি। সুন্দবনকে ভালবাসি বলেই কি এই দুশ্চিন্তা? একাকী,নিরালায় থাকলে তাই কি বুঝতে পারি সুন্দরবন ভাল নেই?

      অসাধারণ এই অনুভব থেকেই লেখক বিজয় চক্রবর্তী ছোট ছোট অভিজ্ঞতার বড় অনুভূতিপ্রবণ মন নিয়ে রচনা করেছেন এই বই। ভাষা যেখানে সহজসরল,বোধ যেখানে গভীর,সূক্ষ থেকে অতিসূক্ষ যেখানে অনুভব। মোট ১৫২ পৃষ্ঠার বই 'অনুভবে সুন্দরবন' যেখানে ভূগোলকে ছাপিয়ে গেছে ওখান মানুষের যাপনচিত্র। বেশ ভাল লাগল 'বাঘবন্দি খেলা','জন্মদিন',''বনবিবির মহিমা','গরানকাঠির চর'লেখাগুলো।

           প্রশাসনিক তৎপরতা থাকা সত্ত্বেও আয়লা,ফণি,আম্ফানের দাগ আজও রয়ে গেছে সুন্দরবনের বুকে। ঘনত্ব কমে যাচ্ছে ম‍্যানগ্রোভের,তাই বনের বাঘ ঢুকে পড়ছে লোকালয়ে। দাঁত,নখ আর চামড়ার দালালের হাতে পাচার হচ্ছে চিনে। 

            সুন্দরবন নিয়ে তাই দুশ্চিন্তা। আবেগের হাত ধরেই আসে মনখারাপ। লেখক বিজয় চক্রবর্তীর কলমে চিত্রকল্পের মুন্সীয়ানা পেলাম। পড়তে পড়তে পাঠকও টের পাবেন লেখকের অনুভূতির স্বচ্ছতা। শিল্পী সুব্রত রায় চৌধুরী যথেষ্ট দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন তুলিতে। শুধু একটাই ত্রুটি রয়ে গেছে। লেখক পরিচিতি পেলাম না। 'জ্বলদর্চি'প্রকাশনার মতো এমন এক নামী প্রকাশনার কাছ থেকে এটা আশা করিনি।

         আমি নিশ্চিত,বিজয় চক্রবর্তীর এই 'অনুভবে সুন্দরবন' গ্রন্থটি বিদগ্ধ পাঠকমহলে সমাদৃত হবে। গ্রন্থকারের ব‍্যক্তিগত অনুভব শক্তি প্রকৃতিপ্রেমিক মানুষদের  মনের অনুভূতিকে প্রাঞ্জল করে তুলুক,এই কামনা করি।

অনুভবে সুন্দরবন
লেখক:বিজয় চক্রবর্তী
জ্বলদর্চি প্রকাশনা
মূল‍্য ৩৫০ টাকা

জ্বলদর্চি পেজে লাইক দিন👇


                                          

Comments

Trending Posts

‘পথের পাঁচালী’ এবং সত্যজিৎ রায় : একটি আলোচনা/কোয়েলিয়া বিশ্বাস

সনাতন দাস (চিত্রশিল্পী, তমলুক) /ভাস্করব্রত পতি

সর্বকালের প্রবাদপ্রতিম কবিসত্তা শক্তি চট্টোপাধ্যায় /প্রসূন কাঞ্জিলাল

ছোটোবেলা বিশেষ সংখ্যা ১১০

শঙ্কুর ‘মিরাকিউরল’ বড়িই কি তবে করোনার ওষুধ!/মৌসুমী ঘোষ

বাংলা ব্যাকরণ ও বিতর্কপর্ব ১৮/অসীম ভুঁইয়া

প্রাচীন বাংলার জনপদ /প্রসূন কাঞ্জিলাল

রাষ্ট্রীয় মূল্যায়ন ও স্বীকৃতি পরিষদ (NAAC) এর মূল্যায়ন ও স্বীকৃতি: উদ্দেশ্য ও প্রস্তুতি - কলেজ ভিত্তিক অভিজ্ঞতা /সজল কুমার মাইতি