পূর্বমেদিনীপুর জেলার মৎস্যজীবী সম্প্রদায়ের কথ্যভাষা-২৫/ বিমল মণ্ডল

Spoken language of the fishing community of East-Medinipur district / Bimal Mondal
পূর্বমেদিনীপুর জেলার মৎস্যজীবী সম্প্রদায়ের কথ্যভাষা
পর্ব-২৫ || চতুর্থ অধ্যায় || বাক্যতত্ত্ব (Syntax) 

৬.২.জটিল বাক্যঃ

আমার এই সমীক্ষা ক্ষেত্র পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মৎস্যজীবীদের কথ্যভাষাতেও জটিল বাক্যের ব্যবহার দেখা যায়। এখানে  জটিল বাক্যে একাধিক খণ্ডবাক্যের পরস্পর সংযোগ ও নির্ভরশীলতা নির্দেশক শব্দরূপে —যেঠি-সেঠি,যবে-তবে,জখঁ- তখঁ, যিমা- সিমা, জানে- তানে,যেটা-সেটা, যদি - তাহিলে,যখোন-তখোন,যুমা-সুমা,যউঠি-সউঠি,যাকে -তাকে ইত্যাদি শব্দগুলো ব্যবহৃত হয়। যেমন-

১. যেঠি- সেঠি।/যেঠিকি -সেঠিকি/যৌঠি-সৌঠি

ক.যেঠিটা মাইঝিওরা জালো টাঁয়ে সেঠিটা অনেকগুলা করি মাচ পড়ুছি।(যেখানে মেয়েরা জাল টানে সেখানে অনেক মাছ পড়ে।
খ.যেঠিকি খ্যালাধুলা হইথায় সেইঠিকি মারামারি হইয়্যালা। (যেখানে খেলাধুলা হতো সেখানে মারামারি হয়ে গেল।)
গ.যেঠি নউকা দেড়িয়া আছে সেঠি একটুও জ নেই।(যেখানে নৌকা দাঁড় করানো  আছে সেখানে একটুকুও জল নেই।)
ঘ.যৌঠি খাবু সৌঠি শুবু।( যেখানে খাবি, সেখানে শুবি।)

২.জখঁ- তখঁ/জখোনো- তখোনো

ক.জখঁ মাচ পড়থালা তখঁ লিয়ায়লুনু।(যখন মাছ পড়ছিল  তখন নিয়ে এলি না।) 
খ.জখোনো জালোরো উঠাই তখোনো মাছো পাইনি।( যখন জাল উঠাই তখন  মাছ পাইনি।)
গ.আমারমোনে জখোন দুদ আনতে যাই তখোনও তারমোনে আইসেনি।( আমরা যখন দুধ আনতে যাই তখন  তারা আসেনি।)

৩.যুমা- সুমা/যৌদিক- সৌদিক

ক. তুই যুমা যাবু,আমি সুমা যাবা।( তুই যেদিকে যাবি, আমি সেদিকে  যাব।)
খ.যৌদিক দি কি নউকা চালিয়ালা সৌদিক দি কি লোক টা আইলা। ( যেইদিক থেকে নৌকাটা গেল সেইদিক থেকে লোক্টা এলো।) 
গ.মুই যুমা যাবো,তোরমোনেও সুমা যাবু।( আমি যেদিকে  যাবো, তোরাও সে দিকে যাবি।)

৪.যেইটা- সেইটা/যা- তা/জউটা- সউটা

ক. যেইটা পাকা থিলা সেইটা পাড়িলিকি পালিছে।( যেটা পাকা ছিল সেটা পেড়ে নিয়ে পালিয়েগেছে।)
খ.টকাটা যা হইছে তা কি হবে জাঁই নি।( ছেলেটা  যা হয়েছে তা কি হবে জানি না।) 
গ.যউটা দেখবু সউটা লুবু?( সেটা দেখবি সেটা নিবি?)

৫.যারুরে- তারুরে 

ক.যারুরে কাচ কত্তে যাবু তারুরে ঘরে খাবু।(যার ঘরে কাজ করতে যাবি তার ঘরে খাবি।)
খ.যারুরে নউকা তারুরে টকাটা লিয়া যাইছে।(যার ঘরে নৌকা  তার ঘরের ছেলেটা নিয়ে গেছে।)

৬.যউ- সউ/যে- সে/যানে-তানে/অউ- সউ

ক. মাঝিরা যউ নউকাটা লিছে সউ নউকাটায় বুসিয়া জাল সারেটে।( মাঝিরা যে নৌকাটা নিয়ে গেছে সেই নৌকাটায় বসে জাল সারছে।)
খ.গাঙে যানে যাইথলো তানে কউ আইসেনি।( নদীতে যারা গিয়েছিল তারা কেউ ফিরে আসেনি।) 
গ.অউ  টকাটা যারুরে,  সউ ঘরটা তারুরে।(এই ছেলেটা  যার ঘরে, সেই ঘরটা তার ঘরে। 

৭.অউঠি- সউঠি/এঠি- সেঠি /এঠিনু - সেঠিনু

ক.অউঠি নউকাটা ডুবিথলো,তাই সউঠিটা লোকটা খুজেটে। (এখানে  নৌকাটা ডুবে গিয়েছিল  তাই সেখানে লোকটা খুঁজছে।)
খ.এঠিনু  জাল ঘুরি লিয়া সেঠিনু জাল মারেটে। (এখান থেকে জাল তুলে নিয়ে সেখানে মারছে।)

৮. জদি-তাইলে/তবে/ তাহিনে/

ক. জদি বিসটি আইসে তাহিনে ঘরনু বারিবো নি।(যদি বৃষ্টি  আসে তাহলে ঘর থেকে  বেরোবো  না।) 
খ.তুই জদি আমাকে লিয়া যাউ তাহলে আমি যাবা।(তুই যদি আমাকে নিয়ে যাস তাহলে আমি যাব।)
গ.মোরমোনে জদি গাঙে যাই,তাইলে আর ফিরিয়া আসবোনি।(আমরা যদি সমুদ্রে যাই তাহলে আর ফিরে আসবো না।)

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার  মৎস্যজীবীদের  কথ্যভাষায় জটিল বাক্য গঠন  যেভাবে  উঠে এসেছে  এলাকা ভিত্তিক সমীক্ষাতে পরের পর্বে  একেই ভাবে  যৌগিক  বাক্যের গঠন  একইভাবে আলোচিত হবে।

আরও পড়ুন 

Comments

Trending Posts

‘পথের পাঁচালী’ এবং সত্যজিৎ রায় : একটি আলোচনা/কোয়েলিয়া বিশ্বাস

সনাতন দাস (চিত্রশিল্পী, তমলুক) /ভাস্করব্রত পতি

ছোটোবেলা বিশেষ সংখ্যা ১১০

সর্বকালের প্রবাদপ্রতিম কবিসত্তা শক্তি চট্টোপাধ্যায় /প্রসূন কাঞ্জিলাল

শঙ্কুর ‘মিরাকিউরল’ বড়িই কি তবে করোনার ওষুধ!/মৌসুমী ঘোষ

প্রাচীন বাংলার জনপদ /প্রসূন কাঞ্জিলাল

বাংলা ব্যাকরণ ও বিতর্কপর্ব ১৮/অসীম ভুঁইয়া

রাষ্ট্রীয় মূল্যায়ন ও স্বীকৃতি পরিষদ (NAAC) এর মূল্যায়ন ও স্বীকৃতি: উদ্দেশ্য ও প্রস্তুতি - কলেজ ভিত্তিক অভিজ্ঞতা /সজল কুমার মাইতি