৭ মে ২০২১

 

Today is the 7th May, 2021
আজকের দিন 
বাংলায় --২৩ বৈশাখ শুক্রবার ১৪২৮

ইংরেজ কবি ও নাট্যকার রবার্ট ব্রাউনিং ( Robert Browning) ১৮১২  সালে আজকের দিনে জন্মেছিলেন। তিনি ভিক্টোরিয়ান যুগের একজন প্রসিদ্ধ কাব্য-নাট্যকার ছিলেন। তাঁর কবিতা বিদ্রূপ, চরিত্রায়ণ, হাস্যরস, সামাজিক ভাষ্য, ঐতিহাসিক ঘটনার বর্ণনা ইত্যাদি কারণে জনপ্রিয় ছিল। তাঁর  বেশিরভাগ কাব্যে গল্পকার হিসাবে একজন বাদক বা চিত্রকরকে দেখা যায়। মূলত রূপক হিসাবে এই চরিত্রগুলো তিনি তাঁর লেখায় ব্যবহার করেছেন। তাঁর লেখা প্রথম দীর্ঘ কবিতা পলিন (Pauline)।

  শান্তিনিকেতনের আশ্রমিক শান্তিদেব ঘোষ ১৯১০ সালে আজকের দিনে জন্মেছিলেন। ইনি  বাঙালি লেখক, কণ্ঠশিল্পী, অভিনেতা, নৃত্যশিল্পী ও রবীন্দ্রসংগীত-বিশারদ। কৈশোরে তিনি রবীন্দ্রনাথের ঠাকুরের কাছে গান শিখতে শুরু করেন। রবীন্দ্রনাথের উৎসাহে তিনি কবির লেখা গীতিনাট্য-নৃত্যনাট্য ও নাটকে গান, নাচ ও অভিনয়ও করতে শুরু করেন। রবীন্দ্রনাথের কয়েকটি কবিতায় তিনি ধ্রুবপদের পুনরুল্লেখ ছাড়াই এক বিশেষ সুরে গেয়ে শোনাতে শুরু করেন। এর মধ্যে 'কৃষ্ণকলি' গানটিও রয়েছে।

  অমিয় বাগচী বা অমিয়কুমার বাগচী ১৯১৫ সালে আজকের দিনে জন্মেছিলেন। ইনি ছিলেন কমিউনিস্ট আদর্শে বিশ্বাসী ও আজীবন রবীন্দ্র অনুরাগী বাঙালি কবি ও গীতিকার। ১৯৪০-এর দশকে তাঁর লেখা আধুনিক বাংলা গান জনপ্রিয়তা লাভ করেছিল। 'সচিত্র শিশির' পত্রিকায় তিনি নিয়মিত লেখালেখি করতেন। তাঁর রচনাসম্ভারের উল্লেখযোগ্য গ্রন্থগুলি হল পতিতা, বাসনা বাসর, মন মুকুর ইত্যাদি।

ভারতীয় সাহিত্য বিষয়ে স্বনামধন্য পণ্ডিত শিশিরকুমার দাশ ১৯৩৬ সালে আজকের দিনে জন্মেছিলেন। ইনি ছিলেন এক অগ্রণী বাঙালি কবি, গদ্যকার, নাট্যকার, অনুবাদকও। প্রায় সম্পূর্ণ একক প্রচেষ্টায় তাঁর লেখা তিন খণ্ডে ভারতীয় সাহিত্যের ইতিহাস সাহিত্যের ইতিহাস চর্চার ক্ষেত্রে এক অন্যতম মাইলফলক। এ ছাড়াও সাহিত্য অকাদেমি প্রকাশিত রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ইংরেজি রচনা সম্পাদনার কৃতিত্ব-ও তাঁর। ২০০৩ সালে আজকের দিনে তিনি প্রয়াতও হয়েছিলেন।

অ কৃ ব নামে সর্বত্র পরিচিত অজিতকৃষ্ণ বসু  ১৯৯৩ সালে আজকের দিনে প্রয়াত হয়েছিলেন। তিনি মূলতঃ ব্যঙ্গ ও কৌতুক রস সাহিত্যিক হলেও জাদুবিদ্যা ও সঙ্গীতে তাঁর বিশেষ পারদর্শিতা ছিল। তাঁর সাহিত্য জীবন শুরু হয়েছিল অনুবাদের মাধ্যমে। মাত্র ১৪ বৎসর বয়সে টমাস মুরের "দি লাইট অভ আদার ডে" কবিতা অনুবাদ করেন। বিচিত্র ছন্দের ব্যবহার এবং তার সাথে কৌতুকরস ও দার্শনিক তত্ত্বের মিশ্রণে রচিত 'পাগলা গারদের কবিতা' তাঁর অক্ষয় কীর্তি ।

মনীষী উবাচ :
যাহা নিজে করিতে হয় তাহা দরখাস্ত দ্বারা হয় না, যাহার জন্য স্বার্থত্যাগ করা আবশ্যক তাহার জন্য বাক্যব্যয় করিলে কোনো ফল নাই। (রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর)
--------------------------
সংকলক- রুম্পা প্রতিহার 
--------------------------
জ্বলদর্চি পেজে লাইক দিন👇

Comments

Trending Posts

‘পথের পাঁচালী’ এবং সত্যজিৎ রায় : একটি আলোচনা/কোয়েলিয়া বিশ্বাস

সনাতন দাস (চিত্রশিল্পী, তমলুক) /ভাস্করব্রত পতি

সর্বকালের প্রবাদপ্রতিম কবিসত্তা শক্তি চট্টোপাধ্যায় /প্রসূন কাঞ্জিলাল

ছোটোবেলা বিশেষ সংখ্যা ১১০

শঙ্কুর ‘মিরাকিউরল’ বড়িই কি তবে করোনার ওষুধ!/মৌসুমী ঘোষ

বাংলা ব্যাকরণ ও বিতর্কপর্ব ১৮/অসীম ভুঁইয়া

প্রাচীন বাংলার জনপদ /প্রসূন কাঞ্জিলাল

রাষ্ট্রীয় মূল্যায়ন ও স্বীকৃতি পরিষদ (NAAC) এর মূল্যায়ন ও স্বীকৃতি: উদ্দেশ্য ও প্রস্তুতি - কলেজ ভিত্তিক অভিজ্ঞতা /সজল কুমার মাইতি