Posts

Showing posts from February, 2021

আধুনিক চিত্রশিল্পের ইতিহাস -৩০/ শ্যামল জানা

Image
আধুনিক চিত্রশিল্পের ইতিহাস -৩০ শ্যামল জানা রেডিমেড ও সেকশন ডি’ওর গিয়োম আ্যপোলোনীয়ার সৃষ্ট অরফিজম্-এর পক্ষে সর্বতোভাবে যে চারজন চিত্রশিল্পী ছিলেন, তাঁরা হলেন— ডিল্যুনে, লেজার, পিকাবিয়া এবং দুশাম্প৷ ১৯১২ সালে আঁকা ডিল্যুনে-র Simultaneous Windows নামের সিরিজ ছবির একটি আমরা দেখেছি৷ যেখানে প্রিজম্-এর বর্ণচ্ছটার রঙকে তিনি আলাদা আলাদাভাবে ব্যবহার করেছিলেন, এবং ছবি থেকে প্রাকৃতিক বাস্তব দৃশ্যকে সম্পূর্ণ বাদ দিয়েছিলেন৷ এর ঠিক পরে পরেই ১৯১৩-১৪ সালে লেজারও একটি সিরিজ পেন্টিং আঁকলেন৷ নাম দিলেন— Contrastes of forms(ছবি-১)৷  এখানেও তিনি সম্পূর্ণ জোর দিলেন রং(Colour), রেখা(Line) ও গঠন(Form)-এর ওপর৷ কিন্তু, তাঁর এই  ছবিতে বিমূর্ততার সব গুণগুলি থাকা সত্ত্বেও একে বিষয়বস্তু বহির্ভূত ছবি বলা হল না৷ কারণ, এই ছবিতে আধুনিক জীবনে যে যান্ত্রিকীকরণ শুরু হয়েছে, সেটিই বিষয় হিসেবে ছবিতে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছিল৷ তাই, অ্যাপোলোনীয়ার তাঁর “Les Peintres cubists” বইতে স্পষ্টভাবে বললেন— এই ধরনের ছবিকে বড়জোর অ্যাবস্ট্রাক্ট কিউবিজম্-এর সূত্রপাত বলা যেতে পারে, কিন্তু আমরা যে নতুন বিশুদ্ধ ছবি(Pure paintin

ছোটোবেলা বিশেষ সংখ্যা -২২

Image
সম্পাদকীয় ছোট্টবন্ধুরা, তোমরা যত বড়ো হবে তোমাদেরও বড়োদের মতো মনে হবে, "ইস্, এই সুন্দর মুহূর্তটা যদি চিরদিন ধরে রাখতে পারতাম!" আর তখনই তোমরাও তোমাদের মোবাইল ক্যামেরায় 'খ্যাচ' করে সেই মুহূর্তটার ছবি তুলে নেবে। ঠিক যেমন ফটোগ্রাফার অপু পাল এমন একটা সুন্দর মুহূর্তের ছবি তুলে আমাদের প্রচ্ছদ সাজাতে দিয়েছেন। কৃতজ্ঞতা জানাই অপু পাল মহাশয়কে। স্কুল তো এখনো পুরোপুরি খোলেনি, তাই বাড়িতে বেশি বেশি মজা আর কম কম দুষ্টুমি করছ তো! তারসাথে পড়ে ফেলো সুকুমার রায়ের ছড়াগুলো।  অমিয় বিশ্বাসের  'খাই খাই' পড়ে কেমন লেগেছে এবারের সংখ্যা পড়ে ঝটপট জেনে নাও আর শিখে নাও কিভাবে ছোটোবেলাটাকে আচারের বয়ামে পুরে রাখা যাবে। এমন একটা ট্রিকস শেখানোর  জন্য অমিয় বিশ্বাসের প্রতি আমাদের কৃতজ্ঞতার শেষ নেই। অবশ্যই চোখ রাখ ছোটোবেলা সংখ্যায়, যে কেউ তোমাদের দুষ্টুমির ছবি তুলে বা ছড়া/ গল্প লিখে পাঠিয়ে দিতে পারে আমাদের জ্বলদর্চির পাতায়। জানো, তথাগত বন্দ্যোপাধ্যায় তোমাদের একজনের দুষ্টুমি নিয়ে ছড়া লিখে ভরিয়ে তুলেছেন ছোটোবেলা সংখ্যা? ধন্যবাদ তথাগত মহাশয়কেও। আর গল্পকার অসিত বরণ বেরা নিজের হোস্টেল জীবনের গ

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১

Image
Today is the 28 February, 2021 আজকের দিন  বাংলায় --- ১৫ ফাল্গুন রবিবার ১৪২৭ বিশিষ্ট নট ও নাট্যকার গিরিশচন্দ্র ঘোষ ১৮৪৪  সালে আজকের দিনে জন্মেছিলেন । ইনি ছিলেন একজন বিশিষ্ট বাঙালি সংগীতস্রষ্টা, কবি, নাট্যকার, ঔপন্যাসিক, নাট্যপরিচালক ও নট। বাংলা থিয়েটারের স্বর্ণযুগ মূলত তাঁরই অবদান।১৮৭২ সালে তিনিই প্রথম বাংলা পেশাদার নাট্য কোম্পানি ন্যাশানাল থিয়েটার প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি প্রায় চল্লিশটি নাটক রচনা করেছেন এবং ততোধিক সংখ্যক নাটক পরিচালনা করেছেন। জীবনের পরবর্তী ভাগে তিনি রামকৃষ্ণ পরমহংসের এক বিশিষ্ট শিষ্য হয়েছিলেন। আজ, জাতীয় বিজ্ঞান দিবস। ১৯২৮ সালে আজকের  দিনটিতে প্রখ্যাত ভারতীয় পদার্থ বিজ্ঞানী চন্দ্রশেখর ভেঙ্কট রামন-এর রামন এফেক্ট-এর আবিষ্কারের সম্মানে ভারতে জাতীয় বিজ্ঞান দিবস হিসেবে পালন করা হয়। ১৯৩৬  সালে আজকের দিনে  জনপ্রিয় বাঙালি লেখক সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায় জন্মেছিলেন । ইনি মূলত রম্য রচনার জন্য খ্যাত। তিনি বেশ কিছু উপন্যাস, ছোটগল্প ও প্রবন্ধ রচনা করেছেন।তাঁর সবথেকে বিখ্যাত উপন্যাস লোটাকম্বল।তাঁর রচনায় হাস্যরসের সাথে তীব্র শ্লেষ ও ব্যঙ্গ মেশানো থাকে। ছোটদের জন্য তাঁর লেখা

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

Image
Today is the 27 February, 2021 আজকের দিন  বাংলায় ----১৪ ফাল্গুন শনিবার ১৪২৭ ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন বিখ্যাত বিপ্লবী নেতা এবং মুক্তিযোদ্ধা চন্দ্রশেখর আজাদ ১৯৩১ সালে আজকের দিনে প্রয়াত হয়েছিলেন । আলফ্রেড পার্কে লড়াই করার সময় পুলিশের হাত থেকে বাঁচার কোনও উপায় খুঁজে না পেয়ে তিনি  নিজের বন্দুকের শেষ গুলিটি দিয়ে নিজেকে নিজেই গুলি করেন। পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন ফুটবল খেলোয়াড় শৈলেন মান্না ২০১২ সালে আজকের দিনে প্রয়াত হয়েছিলেন । হাওড়া ইউনিয়ন ক্লাবের হয়ে তাঁর খেলোয়াড় জীবন হয় শুরু হয়।ইনি ৪০-এর দশক থেকে ৬০-এর দশক পর্যন্ত মূলত কলকাতার মোহনবাগান ক্লাব ও পরে কিছুদিন ইস্টবেঙ্গল ক্লাবে খেলেছেন।  তাঁর অধিনায়কত্বে ভারত ১৯৫১ সালের এশিয়াডে ফুটবলে স্বর্ণপদক পায় ৷ ১৯৬৫ সালে আজকের দিনে কার্তিকচন্দ্র দাশগুপ্ত প্রয়াত হয়েছিলেন । সাহিত্যক্ষেত্রে মূলত শিশু সাহিত্য রচনার জন্য প্রতিষ্ঠালাভ করেন। এই বিভাগে তাঁর উল্লেখযোগ্য রচনা সাবিত্রী,তাই তাই, ফুলঝুরি,চরকাবুড়ী, তেপান্তরের মাঠ,তে-রাত্রিরের তাইরে নাইরে না ইত্যাদি। মনীষী উবাচ : মানবচরিত্র শুধু উপদেশে চলে না, - এ তো ব্যোমযান নয় যে উপদেশে

এত রঙ্গ বঙ্গদেশে তবুও কু- ভঙ্গে ভরা/গৌতম বাড়ই

Image
এত রঙ্গ বঙ্গদেশে তবুও কু- ভঙ্গে ভরা গৌতম বাড়ই বাজারে দু- সপ্তাহে সে হিসেবে যায়নি বললেই চলে। গিন্নী বললেন-  অনেক তো হল! দরজায় যখন আগল খুলেছি এবার ঘুরনা দেই চলো।  আমি হিসেব কষে ছা- পোষা মানুষের মতন ট্যাকের টাকায় মনে- মনে একটা ছোট্ট হিসেব নিলাম, দেখলাম যাওয়া যেতেই পারে। তা গিন্নী মন্দ বলেনি। একটু কাছে- পিঠে ঘুরে আসাই যায়। গম্ভীর হয়ে বেশ একটা কর্তা- কর্তা ভাব নিয়ে বললুম-- তা কোথায় যাবে ঘুরনা দিতে? এতদিন পরে বেরুচ্ছি কাছাকাছি ভ্রমণ- ই ভাল। কি বল? গিন্নী বললে-- হ্যাঁ, হ্যাঁ তাই চলবে। তবে আমরা তাহলে যাচ্ছি। তোমার ঐ রাজনীতির নোংরামী দেখে দেখে টিভির মুখ দর্শন করতে ইচ্ছে করে না। ঘরে বোরড হয়ে গেলাম। ইমিউনিটি বাড়াতে আর নিজেকে বুস্টিং করতে বেরুতেই হবে।  আমি গদগদ হয়ে গিন্নীর কাছ ঘেঁষে বসে গান জুড়ে দিলাম আমার স্বভাবসিদ্ধ ঐ মিহিগলায়--আরও দূরে চলো যাই - মন নিয়ে কাছাকাছি --তুমি আছ আমি আছি-- পাশাপাশি।  গিন্নী বলে উঠলেন-- কী ব্যাপার কত্তা? খুব প্রেম জেগেছে মনে তাই না! এই যে বেড়ানোর কথা বলে কী প্রেম উস্কে দিলাম মনে! বল? তবে সাবধান, এই বয়সে বেশি ভালবাসা ভাল নয় কিন্তু। আমি বললাম

পূর্বমেদিনীপুর জেলার মৎস্যজীবী সম্প্রদায়ের কথ্যভাষা-২৩/ বিমল মণ্ডল

Image
Spoken language of the fishing community of East-Medinipur district / Bimal Mondal পূর্বমেদিনীপুর জেলার মৎস্যজীবী সম্প্রদায়ের কথ্যভাষা পর্ব-২৩  চতুর্থ অধ্যায় বাক্যতত্ত্ব (Syntax)  ৪. অব্যয় পদের ব্যবহারঃ    মান্য চলিত বাক্যে অব্যয় পদের  সঙ্গে পূর্বমেদিনীপুর জেলার মৎস্যজীবীদের কথ্যভাষা বাক্যে ব্যবহৃত অব্যয় পদের কিছু কিছু   ক্ষেত্রে পার্থক্য পরিলক্ষিত হয়। যেমন— তাহিলে, থেকিয়া, চাইতে,  কিনতু, ফের, সউ ইত্যাদি শব্দের  ব্যবহার রয়েছে।  ৪.১ সম্বন্ধবাচক অব্যয়  ৪.১.১. সংযোজক অব্যয়ঃ                        পূর্বমেদিনীপুর জেলার মৎস্যজীবীদের কথ্যভাষায় যে সব  সংযোজক অব্যয় পদ ব্যবহার হয় তা মান্যচলিত থেকে সামান্য  আলাদা। তা হল — ও, আর, ফের, অরফে, ইত্যাদি।   ক. মইদুল ও সামিম গাঙে নৌকা লিয়া যাইছে। (মৃদুল ও সামিম সমুদ্রে নৌকা নিয়ে গেছে।)  খ.তুই মোরদরে  ফের আসবু নি।( তুই আমার ঘরে আর আসবি না।)  গ. তোনে আইলু আর সে আইলো নি? ( তোরা এলি আর সে এলো না।)  ঘ.  রাজু ভিডিও অফিসে তোর নামে অরফে সই কচ্ছে। ( রাজু বিডিও অফিসে তোর নামে ওরফে সহি করেছে।)  ৪.১.২. সংকোচক অব্যয়ঃ এখানে অব্যয়পদ রূপে তেবে, কিনতু, তবুও ই

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১

Image
Today is the 26 February, 2021 আজকের দিন  বাংলায় --- ১৩ ফাল্গুন শুক্রবার ১৪২৭ বাঙালি লেখিকা লীলা মজুমদার ১৯০৮ সালে আজকের দিনে জন্মেছিলেন । বাল্যজীবন কাটে শিলঙে। তাঁর প্রথম গল্প লক্ষ্মীছাড়া। তার কয়েকটি উল্লেখযোগ্য রচনা হল হলদে পাখির পালক, টং লিং, পদি পিসীর বর্মী বাক্স, সব ভুতুড়ে, মাকু গল্পসল্প। প্রথম আত্মজীবনী 'আর কোনখানে'। তাঁর শিলঙে ছেলেবেলা, শান্তিনিকেতন ও অল ইন্ডিয়া রেডিওর সঙ্গে তাঁর কাজকর্ম, রায়চৌধুরী পরিবারের নানা মজার ঘটনাবলী ও বাংলা সাহিত্যের মালঞ্চে তার দীর্ঘ পরিভ্রমণের কথা বর্ণিত হয়েছে পাকদণ্ডী নামে তাঁর লেখা আত্মজীবনীতে। বিখ্যাত সাহিত্যিক এবং সাংবাদিক সন্তোষকুমার ঘোষ ১৯৮৫ সালে আজকের দিনে প্রয়াত হয়েছিলেন। কবিতা দিয়ে তাঁর  সাহিত্য রচনার শুরু হয়। তাঁর প্রথম উপন্যাস নানা রঙের দিন থেকেই তাঁর মধ্যে এক নতুন রচনাশৈলির পরিচয় পাওয়া যায়। কিনু গোয়ালার গলি তাঁর একটি উল্লেখযোগ্য উপন্যাস। তাঁর আত্মজীবনীমূলক উপন্যাস শেষ নমস্কার - শ্রীচরণেষু মাকে গ্রন্থটির জন্য  ১৯৭৩ সালে সাহিত্য অকাদেমি পুরস্কারে সম্মানিত হন। ১৯৬৬ সালে আজকের দিনে বিনায়ক দামোদর সাভারকর প্রয়াত

২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১

Image
Today is the 25 February, 2021 আজকের দিন  বাংলায় ----১২ ফাল্গুন বৃহস্পতিবার ১৪২৭ বাঙালি কবি ও শিশুসাহিত্যিক সুনির্মল বসু  ১৯৫৭ সালে আজকের দিনে প্রয়াত হয়েছিলেন । প্রবাসী পত্রিকায় তাঁর প্রথম কবিতা প্রকাশিত হয়। তিনি কবিতা, ছড়া, গল্প,  উপন্যাস,  রূপকথা, ভ্রমণকাহিনী, কৌতুক নাটক ইত্যাদি মাধ্যমে শিশু-কিশোর উপযোগী সাহিত্য রচনা করেন। তাঁর কয়েকখানি উল্লেখযোগ্য হলো হাওয়ার দোলা, ছানাবড়া, বেড়ে মজা, হৈ চৈ, হুলুস্থূল, কথাশেখা, পাততাড়ি, ছন্দের টুংটাং ইত্যাদি। ১৯৮৩ সালে আজকের দিনে আমেরিকান নাট্যকার থমাস ল্যানিয়ার উইলিয়ামস তৃতীয়  প্রয়াত হয়েছিলেন। তাঁর কলম নাম টেনেসি উইলিয়ামস নামে পরিচিত। তাঁর লেখা A Streetcar Named Desire, Cat on a Hot Tin Roof, Sweet Bird of Youth, and The Night of the Iguana  উল্লেখযোগ্য। ভারতীয় অভিনেতা শাহিদ কাপুর ১৯৮১ সালে আজকের দিনে জন্মেছিলেন । ইশক ভিশক নামে একটি রোম্যান্টিক কমেডি ছবিতে তিনি প্রথম প্রধান ভূমিকায় অভিনয় করেন। প্রথম বাণিজ্যিক সফল ছবি বিবাহ। জন্মদিনে শুভেচ্ছা ও শুভকামনা। বলিউডের একসময়ের হার্টথ্রব  দিব্যা ভারতী ১৯৭৪ সালে আজকের দিন

রসায়নবিদ ড: শান্তিস্বরূপ 'পেট্রোলিয়াম' ভাটনাগর/পূর্ণচন্দ্র ভূঞ্যা

Image
বিজ্ঞানের অন্তরালে বিজ্ঞানী ।। পর্ব ― ১৩ রসায়নবিদ ড: শান্তিস্বরূপ 'পেট্রোলিয়াম' ভাটনাগর: পূর্ণচন্দ্র ভূঞ্যা অভিনব বিজ্ঞাপন। অভিনব তার ভাষা। তার বিষয়। যে-কেউ আকর্ষিত হবে। আপাত অবাস্তব তার কায়দা-কানুন, ক্রিয়া-কৌশল। অভিনব কায়দায় জ্বলজ্বল করছে বিজ্ঞাপনের অক্ষরগুলো― "সস্তায় চাঁদ ভ্রমণের টিকিট পাওয়া যাচ্ছে!" টিকিট বিক্রি করছে কতিপয় শ্বেতাঙ্গ যুবক। চাঁদে যাওয়ার লম্বা লাইনও পড়েছে। কারও চোখে দারুণ আগ্রহ। কেউ বা কৌতূহলী। হালকা গুঞ্জন। ফিসফাস আওয়াজ। চাপা স্বরে কথাবার্তা। সব মিলিয়ে যেন রহস্য রোমাঞ্চকর গোয়েন্দা কাহিনী। কৌতূকের বশে লাইনে দাঁড়িয়ে পড়লেন প্যান্ট-কোট-টাই পরা মাঝবয়সী এক ভদ্রলোক। অশ্বেতাঙ্গ বিদেশি। সময় এলে কাউন্টারে গিয়ে বললেন― 'আমাকে একখানা টিকিট দেবেন, প্লিজ।' 'এই নিন, স্যার'। টিকিট আর ফেরৎ মূল্য বুঝে নিতে নিতে আগন্তুক বিষ্ময় প্রকাশ করে― 'এ যে কেবলমাত্র চাঁদে যাওয়ার টিকিট! ফেরা'র টিকিট কোথায়?' 'সরি স্যার, রিটার্ন জার্নি টিকিটের বন্দোবস্ত নেই।' 'এই ধরুন টাকা। আমাকে এক্ষুনি একটা রিটার্ন টিকিট দিন!' 'কিন্তু আমাদে

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

Image
Today is the 24 February, 2021 আজকের দিন।  বাংলায় ---১১ ফাল্গুন বুধবার ১৪২৭ যুক্তরাষ্ট্রের একজন উদ্যোক্তা ও প্রযুক্তি উদ্ভাবক  স্টিভ জবস ১৯৫৫ সালে আজকের দিনে জন্মেছিলেন।  পুরো নাম স্টিভেন পল জবস (Steven Paul "Steve" Jobs)। তাঁকে পার্সোনাল কম্পিউটার বিপ্লবের পথিকৃৎ বলা হয়। তিনি স্টিভ ওজনিয়াক এবং রোনাল্ড ওয়েন -এর সাথে ১৯৭৬ খ্রিষ্টাব্দে অ্যাপল কম্পিউটার প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি অ্যাপল ইনকর্পোরেশনের প্রতিষ্ঠাতাদের অন্যতম ও সাবেক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ছিলেন। ইতিহাস থেকে জানা যায় ১৩০৪ সালে আজকের দিনে ইবন বতুতা জন্মেছিলেন। তাঁর পূর্ণ নাম হলো আবু আবদুল্লাহ মুহাম্মদ ইবনে বতুতা। সুন্নি মুসলিম পর্যটক, চিন্তাবিদ, বিচারক এবং সুন্নি ইসলামের মালিকি মাজহাবে বিশ্বাসী একজন ধর্মতাত্ত্বিক। চীনসহ পৃথিবীর অনেক জায়গায় তিনি শামস-উদ্‌-দ্বীন নামেও পরিচিত। ব্রিটিশ ভারতের প্রসিদ্ধ স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ স্যার কেদারনাথ দাস ১৮৬৭ সালে আজকের দিনে জন্মেছিলেন। কর্ম জীবনের প্রথম দিকে বহু ভারতীয় ও বিদেশী গবেষণামূলক পত্রিকায় মধুমেহ, মস্তিষ্কের টিউমার, ধনুষ্টঙ্কার প্রভৃতি বিভিন্ন বিষয়ে তাঁর প্রবন্